২০১৫ সালের পর তামিমের বাটিং গড় ৫১, মুসফিকের ৪৭, এবং রিয়াদের ৩৯

পাল্টে যাওয়া বাংলাদেশের শুরু ২০১৫ সালে বিশ্বকাপের পর। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সে বছর প্রথমবারের মত কোয়াটার ফাইনালে খেলে লাল-সবুজের এই দেশ। অার সেই বিশ্বকাপে পরপর ২ টি সেঞ্চুরি করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অার সেই থেকে শুরু মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের।

অন্যদিকে মুসফিকুর রহিম এবং তামিম ইকবাল অাছেন সেরা ফর্মে। এক কথায় বলা যায় পাল্টে যাওয়া বাংলাদেশের মূল কারিগর এই তিনজনই। অাসুন দেখে নেই বিশ্বকাপের পর এই তিন জনের ব্যাটিং পারফোমেন্স।

বিশ্বকাপের পরে এ সময়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৩৫ ইনিংস ব্যাট করেছেন। ১০৯৫ রান, গড় ৩৯.১০, শতক ৩ টি, অর্ধশতক ৬ টি, স্টাইকরেট ৮৩.৪৯, সর্বচ্চো ১২৮* রান।

অন্যদিক তামিম ইকবাল অাছেন কারিয়ারের সেরা ফর্মে। ২০১৫ সালের পর থেকে ধরা ছোযার বাইরে অাছেন তিনি। ৩৯ ইনিংসে ৫১ গড়ে তিনি করেছে ১৭৯৫ রান। ৫ সেঞ্চুরি সহ ১১ টি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ৪ বার ম্যাচ সেরা এবং ২ বার হয়েছেন টুর্নামেন্ট সেরা।

বিশ্বকাপের পরে এই তিন বছরে চমৎকার ব্যাটিং করেছে মুসফিকুর রহিম। ৩৬ ইনিংসে ৪৭.৪৩ গড়ে তার রান ১৪২৩। স্টাইকরেট ৯৪.৩১, ৩ সেঞ্চুরি এবং ৯ হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। হয়েছেন ৪ বার ম্যাচ সেরা এবং ১ বার টুর্নামেন্ট সেরা।